অগ্নিদগ্ধ হয়ে এক গৃহবধূর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ছড়াল ডোমজুড়ের বাগপাড়া এলাকায়

বছর পাঁচেক আগে হাওড়া ডোমজুড়ের বাগপাড়ার বাসিন্দা রঞ্জিত বাগের সাথে বিয়ে হয়েছিল স্থানীয় যুবতী অনিতার। অভিযোগ,অনিতার বাড়ির লোকজনের আর্থিক অবস্থা খারাপ হবার ফলে শুরু থেকেই অনিতার উপরে মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার শুরু করে শ্বশুর বাড়ির লোকজনেরা। প্রায়শই টাকা সহ অন্যান্য জিনিসের জন্য অনিতাকে চাপ দেওয়া হতো। আর বাপের বাড়িতে আসতেও দেওয়া হতো না বা তার সাথে বাপের বাড়ির কাউকে কথাও বলতে দেওয়া হতো না। এই অবস্থাতে গতকাল গভীর রাতে অনিতার বাড়ির লোক জানতে পারে অনিতার মৃত্যু হয়েছে। খবর পেয়ে শ্বশুর বাড়িতে গেলে তারা দেখতে পায় দোতলার উপরে একটি ঘরে পিছমোড়া করে বাঁধা অবস্থায় খাটের নিচে পড়ে রয়েছে অনিতার অগ্নিদগ্ধ মৃতদেহ। অভিযোগ, অনিতার পরিজনকে খবর দেওয়ার আগেই খবর দেওয়া হয়েছিল পুলিশকে। আর পলাতক ছিলো মৃতের স্বামী সহ ছোট ননদ। ঘটনাটি জানাজানি হতেই তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়, উত্তেজিত এলাকাবাসী ব্যাপক ভাঙচুর চালায় অভিযুক্তর বাড়িতে। এলাকাযর মহিলাদের দেখা যায় মৃতের শাশুড়ির উপরে চড়াও হতে। মৃতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ডোমজুড় থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে অভিযুক্ত শাশুড়ি বুলু বাগকে, পলাতক স্বামী ও ননদ। একটি অনিচ্ছাকৃত খুন ও বধূ নির্যাতনের মামলা শুরু করেছে পুলিশ।

https://youtu.be/UVkaV9AVt4g

Covid

Co