ছাই চাপা দিয়ে আগুনকে রোখা যায় না, ঠিক তেমনি লাল-হলুদ ব্রিগেডকে দমিয়ে রাখা যাবে না : ক্রীড়া মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

বৃহস্পতিবার এক মনোজ্ঞ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের ক্রীড়া দিবস উদযাপন করলো ইস্টবেঙ্গল ক্লাব। কর্মসূচি অনুযায়ী স্নেহা ফাউন্ডেশনের অনাথ শিশু দের সাহায্য করা হয় এবং চিত্তরঞ্জন ক্যান্সার হাসপাতালের রোগীদের ফল বিতরণ করা হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট প্রাক্তন ফুটবলার বাইচুং ভুটিয়া অরুন দে, ক্রীড়া মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, রঞ্জি চকি জয়ী বাংলা দলের অধিনায়ক সম্বরন ব্যানার্জি প্রমূখ।


যদিও এখনও অবধি আইএসএলে খেলার ব্যাপারে কোন নিশ্চয়তা নেই ইস্টবেঙ্গলের। ১০ টি দল নিজেদের জার্সি আইএসএল কর্তৃপক্ষকে পাঠালেও, সেখানে নাম নেই ইস্টবেঙ্গলের। এ সংকট পরিস্থিতির মধ্যেই আয়োজিত হয়েছিল এই অনুষ্ঠানটি।
কিন্তু ক্রীড়া মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস গর্বের সাথে জানান, ইস্টবেঙ্গল কে কোনভাবেই দমিয়ে রাখা যাবে না। ইস্টবেঙ্গল না খেললে আইএসএল যাতে উঠবে না। মোহনবাগান ,ইস্টবেঙ্গল, মহামেডান স্পোর্টিং ছাড়া ভারতীয় ফুটবল ভাবা অসম্ভব।


আবার এদিন বাইচুং ভুটিয়া কে আইএসএল নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি হেঁয়ালির সুরে বলেন, ১০০ বছর পর হিসেব মেলালে দেখা যাবে সব থেকে বেশি আইএসএল ইস্টবেঙ্গলই জিতেছে ।
তবে কি এই বছরই দর্শক ইস্টবেঙ্গল কে আইএসএল খেলতে দেখতে পাবে? জল্পনা তুঙ্গে।

Covid

Co