করনায় মৃত প্রিয়জনের দেহ দেখতে দেবার জন্য ৩১ হাজার টাকা ঘুষ চাওয়ার অভিযোগ হাওড়ার শিবপুর শ্মশান কর্মীদের বিরুদ্ধে

আমরা এ প্রজন্মের মানুষেরা বোধহয় আর কিছু দেখা থেকেই বঞ্চিত থাকবো না, কারণ যখন অতিমাড়ি এল তখনো অনেক নতুন কিছু দেখলাম, জানলাম। সর্বশেষ যেটা জানলাম, অতিমাড়ির কারণে প্রিয়জনের মৃত্যু হলে, শেষ দেখার জন্য ঘুষ দিতে হয় ঘটনাটি হাওড়ার শিবপুর শ্মশান ঘাটের। সম্প্রতি হাওড়া শিবপুর এলাকার এক বাসিন্দা হরি ওম গুপ্তা নামের এক বৃদ্ধ আক্রান্ত হন করোনায়। পরিজনেরা সে খবর স্বাস্থ্য দপ্তর কে দিলে প্রথমে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় টি এর জয়সোয়াল হাসপাতালে, সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে, তাকে স্থানান্তরিত করা হয় সঞ্জীবনী হাসপাতালে। অভিযোগ, সেখানে শনিবার রাত ১ টায় রোগীর মৃত্যু হলেও, কোন কিছু জানানো হয়নি বাড়ির লোকজনকে । এরপর আজ সকালে স্বাস্থ্য দপ্তরের শববাহী যানে করে তার মৃতদেহ শিবপুর শ্মশানে দাহ করবার জন্য নিয়ে আসা হলে, সেখানে হাজির হন মৃতের পরিবারের লোকজন। আর তখনই অভিযোগ ওঠে, মৃতদেহটি শেষবারের মতো দেখার জন্য পরিবারের লোকজনের কাছে ৩১ হাজার টাকা দাবি করে শ্মশানের জনৈক ডোম রাজা মল্লিক । টাকা দিতে অপরাগ শোকস্তব্ধ পরিবারের লোকজনের সাথে রাজার রীতিমতো বাদানুবাদ হয় বলে অভিযোগ। অভিযোগ সেই বিতন্ডার ছবি তুলতে গেলে রমেশ গুপ্তা নামের একজনের মোবাইল ফোন কেড়ে নেয় রাজা ও তার দলবল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলেও কোন সুরাহা হয়নি। পরে পুলিশের উপস্থিতিতে, পরিবারকে দেহ দেখার সুযোগ না দিয়েই দাহ করে দেওয়া হয় মৃতদেহটি। বিষয়টি নিয়ে বিকেলেই জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক এর কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতের পরিবার, আশ্বাস মিলেছে ঘটনার তদন্তের।

https://youtu.be/YmsBR-3yCPI

Covid

Co