চোরা শিকারিদের গুলিতে বনগাঁয় মৃত ১০টি পানকৌড়ি, উদ্ধার পাখি মারা রাইফেল, পলাতক অভিযুক্তরা

করোনা আবহে লকডাউনের মাঝে সারা রাজ্য জুড়েই বেড়েছে চোরা শিকারিদের দৌরাত্ম্য। চোরা শিকারিদের হাতে যেমন মৃত্যু হচ্ছে গন্ডারের, তেমনি নেহাত শখ আর মাংস খাবার লোভে প্রাণ হারাচ্ছে পানকৌড়ির মতো পাখিরাও। এদিন বনগাঁর জোড়া ব্রিজ প্রতাপনগর এলাকায় বাঁশঝাড়ের আড়ালে পাখিমারা রাইফেল দিয়ে দিব্য চলছিল পানকৌড়ি শিকার। আর হঠাৎ করেই সেখানে হাজির হয়ে যায বনগাঁর স্ট্রীট ডগের সদস্যরা। হাতেনাতে ধরে ফেলেন চোরা শিকারিদের। কিন্তু ঝামেলা চলাকালীনই তাদের রাইফেল আর শিকার করা পাখি গুলিকে ফেলে চম্পট দেয় পাখি শিকারীরা। উদ্ধার করা হয় দশটি মৃত ও দুটি জীবিত পানকৌড়িকে। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়,খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন বনগাঁর এসডিপিও অশেষ বিক্রম দস্তিদার সহ বিশাল পুলিশবাহিনী। ভেঙে ফেলা হয় উদ্ধার করা পাখি মারা বন্দুকটি। আহত পাখির দুটিকে বনগাঁ স্ট্রীট ডগের সদস্যরা শুশ্রূষা করে ছেড়ে দেয় জলে। মৃত পাখি গুলিকে পুঁতে দেওয়া হয় বিলের পাড়ে। পলাতক চোরা শিকারিদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

https://youtu.be/WvtORPkvxU8

Covid

Co