আম্ফান ঝড় ক্ষতিগ্রস্থ পানিহাটির ইলেকট্রিক চুল্লি মেরামতের দাবিতে সরব হলো সিপিএম

কলকাতার বাইরে প্রথম শব দাহের ইলেকট্রিক চুল্লির ব্যবস্থা হয়েছিলো, পানিহাটি পৌর শ্মশানে।সিদ্ধার্থ শংকর রায়ের আমলেই সেই চুল্লির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন তৎকালীন মন্ত্রী ভোলা সেন। পরবর্তীতে বাম সরকার ক্ষমতায় এসে চুল্লিটিকে বাস্তব রূপ দান করে। তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পরে একটি জায়গায় দুটি চুল্লি উদ্বোধন হয়। আসলে শুধুমাত্র পানিহাটির মানুষজন নয়, পুণ্য সলিলা গঙ্গার তীরবর্তী এই শ্মশানঘাট ব্যবহার করেন বিলকান্দা পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে নিউ ব্যারাকপুর, মধ্যমগ্রাম এমনকি বারাসতের মানুষজনও। সেই অতি গুরুত্বপূর্ণ শ্মশানঘাটের ইলেকট্রিক চুল্লীর একমাত্র চিমনীটি উড়ে যায় আমফান অতিঘূর্ণি ঝড়ে। তারপর প্রায় তিন মাস অতিক্রান্ত হবার পরেও কোনো প্রশাসনিক উদ্যোগ দেখা যায়নি চিমনী মেরামতের, ফলে নিদারুণ অসুবিধার মধ্যে পড়েছে পানিহাটি সহ সংলগ্ন এলাকার মানুষজন।এবার সেই অতি প্রয়োজনীয় ইলেকট্রিক চুল্লী মেরামত করে পুনরায় তা ব্যবহারের উপযোগী করে তোলার দাবি জানালো সিপিএম।দলের নেতা দুলাল চক্রবর্তী দাবি করেন লক্ষ লক্ষ মানুষের স্বার্থের কথা মাথায় রেখে অবিলম্বে এই চুল্লি চালু করতে হবে।

https://youtu.be/6OZCeGTWeHE

Covid

Co