পরীক্ষা স্থগিতের দাবি জানিয়ে ধর্ণা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের।

করোনার দাপটে চলতি বছরের দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে। বিভিন্ন রাজ্যে ইতিমধ্যেই ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণীর পড়ুয়াদের পাস করিয়ে পরবর্তী শ্রেণীতে তুলে দেওয়া হয়েছে। আবার অসম সহ কিছু রাজ্যে উচ্চমাধ্যমিকের মতো গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা কবে হবে তা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরীক্ষা নেওয়ার বিরোধিতা প্রথম থেকেই করে আসছে পড়ুয়াদের একাংশ।
এদিন উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা স্থগিত রাখার দাবিতে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা জমায়েত করে শিলচরে ক্ষুদিরাম মূর্তির পাদদেশে। তারপর ১ ঘটার বেশি সময় ধরে ধর্নায় বসেছিল তারা। অবরোধ করা হয় রাস্তাও। পরে জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ধর্ণা ওঠে। আন্দোলনকারীরা অসম উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা পরিষদে এই বিষয়ে একটি সস্মারকলিপি পাঠিয়েছে।
তাদের দাবি , করোনার জন্য প্রায় ৮ মাস বন্ধ ছিল স্কুল, পঠন পাঠন হয়নি, আর সেই কারণেই তারা চাইছে পরীক্ষা যেন স্থগিত রাখা হয়। কিন্তু পড়ুয়াদের একাংশ সম্পুর্ন্ন অন্য কথা জানাচ্ছেন।তাদের বক্তব্য, তারা কোনোভাবেই ১টা বছর নষ্ট হোক সেটা চাইছে না। তারা চান দেরিতে হলেও যেন পরীক্ষা হয় নইলে হাজার হাজার পড়ুয়ার ১ তা বছর নষ্ট হবে।

Covid

Co