স্ত্রীর উপর শারীরিক অত্যাচারের ঘটনায় এক যুবককে ন্যাড়া করে গ্রাম ঘোরানোর ঘটনায় চাঞ্চল্য শাসনের পাকদ গ্রামে

শাসন থানার পাকদ গ্রামের যুবক আবু কালাম তিন বছরের বেশি সময় আগে বিয়ে করেছিল গ্রামেরই ১ যুবতীকে। অভিযোগ, আদ্যোপান্ত নেশাসক্ত কালাম বিয়ের পর থেকেই নানাভাবে শারীরিক অত্যাচার চালাত তার স্ত্রীর উপর। বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার থানা পুলিশও হয়েছে, বসেছে গ্রামের সালিশি সভাও। প্রতিবারই নিজের দোষ স্বীকার করে নিয়ে “আর হবে না” এই শপথ নিয়ে, পরদিনই আবার বউয়ের উপর চড়াও হতো ঐ যুবক।

এদিন ফের সে তার স্ত্রী কে ব্যাপক মারধরের পর, গলা টিপে ধরলে তার স্ত্রী কোনরকম ভাবে নিজেকে বাঁচিয়ে, বাড়ির বাইরে এসে চিৎকার শুরু করলে জমা হয়ে যায় এলাকার মানুষজন। এরপর স্থানীয়রাই কালামকে রাস্তার ধারে ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে ন্যাড়া করে দেয়, ঘোরানো হয় পুরো গ্রাম, ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। স্ত্রীর গায়ে হাত তোলা যেমন অপরাধ, তেমনভাবে নিজেদের হাতে আইন তুলে নেওয়া কিন্তু সমান অপরাধ। সেক্ষেত্রে গ্রামবাসীরা নিজেদের দায় এড়াতে পারেন না। এক্ষেত্রে পুলিসি নিষ্ক্রিয়তাকেই দায়ী করেছেন সমাজবিদেরি। তাঁরা জানাচ্ছেন, স্ত্রীর অভিযোগ পেয়ে পুলিশ আগেই যদি কঠোর ব্যবস্থা নিতো অভিযুক্ত কালামের বিরুদ্ধে, তাহলে হয়তো এভাবে নিজেদের হাতে আইন তুলে নিতে হতো না গ্রামবাসীদের।

https://youtu.be/tuGUC21MYek

Covid

Co