বেশ কিছু দাবি এবং অভিযোগ তুলে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ঘেরাও করলো ফেটসু।

এখনো পর্যন্ত স্বাভাবিক ভাবে শুরু হয়নি বিশ্ববিদ্যালয় গুলি,তার মধ্যেই একদফা ঘেরাও কর্মসূচি হয়ে গেলো যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে। এদিন যাদবপুরের ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র সংসদ তথা ফেসটু এদিন রাত পর্যন্ত বিক্ষোভ দেখায়। তাদের দাবি, প্রথমত ফল প্রকাশে দেরি হয়েছে, তারপর ফল প্রকাশ করা হলেও তাতে বহু অসঙ্গতি ছিল এবং উল্লেখযোগ্যভাবে স্নাতকোত্তর স্তরের ভর্তিতে অস্বচ্ছতা লক্ষ করা গেছে।এইসব দাবি জানিয়েই পড়ুয়ারা দুই সহ-উপাচার্য এবং বিভাগীয় ডিনকে ঘেরাও করে রাখে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস যদিও এর আগেই বিশ্ববিদ্যালয় ছেড়ে বেরিয়ে যান। আর তার পরেই অরবিন্দ ভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখতে শুরু করে ছাত্র সংগঠনের পড়ুয়ারা।
ফেটসু তরফে জানানো হয়েছে, ফলপ্রকাশ দেরিতে হয়েছে , শুধু তাই নয় প্রথম বর্ষের মার্কশীট দেওয়া হয়েছে ২বার। প্রথমবার যে নম্বর হয়েছিল পরেরবার তার থেকে অনেক কম নম্বর দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি, স্নাতকোত্তরে ভর্তির ক্ষেত্রেও অস্বচ্ছতা দেখা যাচ্ছে।আর এই সবকিছুর বিরুদ্ধেই তারা সরব হয়েছেন।
তবে এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় তরফে জানানো হয়েছে,এই বিষয়গুলি নিয়ে সাধারণ আলোচনা করলেই হতো, এর জন্য বিক্ষোভের কোনো প্রয়োজন ছিলোনা।

Covid

Co