সারারাত ধরে বিধানসভা এলাকা স্যানিটাইজেশন এর মধ্য দিয়ে পালন স্বাধীনতা দিবস

দেশের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস যখন পালন করা হচ্ছে; দেশ তখন লড়ছে করণা অতিমাড়ির সঙ্গে। তাই শুধু জাতীয় পতাকা তুলে আর লাড্ডূ বিতরণের মধ্যেই দিনটিকে সীমাবদ্ধ রাখতে চাননি উত্তর দমদমের বাম বিধায়ক তনময় ভট্টাচার্য, সারারাত ধরে বিধানসভা এলাকা সেনিটাইজেশন এর মধ্য দিয়ে পালন করলেন স্বাধীনতা দিবস। আজ দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস। যেহেতু ১৯৪৭ সালের ১৫ ই আগস্টের মধ্যরাতে ক্ষমতার হস্তান্তর হয়েছিল, সে কারণে অনেক জায়গাতেই ১৪ ই আগস্ট থেকে ১৫ ই আগস্টের পদার্পণ মুহূর্ত, মানে রাত ১২টাতেই জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে শুরু হয়ে যায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপন। সেভাবেই এবার স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের আয়োজন করেছিলেন উত্তর দমদমের সিপিএম বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্য। তবে মার্কসীয় দৃষ্টিভঙ্গি থেকে তার মনে হয়েছে যে, এবারের স্বাধীনতা দিবস দাবি করছে অন্য কিছু, মানে দেশ যেভাবে যাচ্ছে এক অতিমাড়ির ভয়াবহ আক্রমণের মধ্য দিয়ে, তা সাম্রাজ্যবাদী আগ্রাসনের থেকে কম কিছু নয়। তাই স্বাধীনতা দিবস পালন মানে এবার আর শুধু জাতীয় পতাকা উত্তোলন তারপর দেশাত্মবোধক বক্তৃতা ও মিষ্টি মুখে শেষ নয়, এবারের দাবি অতিমাড়ির হাত থেকে সাধারণ মানুষকে রক্ষা করার শপথ নেওয়া; আর সে কারণেই এদিন মধ্যরাত থেকে তন্ময় ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে বাম ও কংগ্রেস কর্মীরা রাস্তায় নামলো বিধানসভা অঞ্চলের বিস্তীর্ণ এলাকা কে জীবাণুমুক্ত করার কাজে। দলীয় কর্মী সমর্থকদের সাথে সাথে সে কাজে হাত লাগালেন বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্য স্বয়ং।

https://youtu.be/3XUFMzWEAS4

Covid

Co