বন্ধ হচ্ছে না যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের সান্ধ্য শাখা।

সম্প্রতি জল্পনা চলছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের সান্ধ্য শাখা বন্ধ হওয়া নিয়ে। বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ জানিয়েছিল, শিক্ষক সংখ্যা কম , সেই কারণেই ইতিহাস বিভাগের সান্ধ্য শাখা বন্ধ করার কথা ভাবা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বন্ধ হচ্ছে না যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের সান্ধ্য শাখা।
বেশ কিছুদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা সান্ধ্য শাখা বন্ধ করার প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছেন। পথে নেমে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জানিয়েছেন, তিনি কখনো চাননি সান্ধ্য শাখা বন্ধ করতে। প্রয়োজনে তিনি নিজে পড়াবেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, শাখা টিকে সুষ্ঠুভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি একাডেমিক এ্যাডভাইজারী কমিটি গঠন করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই কলা বিভাগের অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে ইতিহাস বিভাগের সান্ধ্য শাখাতেও ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হবে।
এ দিন গভীর রাত পর্যন্ত অনলাইনে কলা বিভাগের ভর্তি কমিটির মিটিং চলে। আর সেই মিটিং-এ ঠিক করা হয় ওই শাখাটি চালু রাখতে হবে।
এই বিষয়ে প্রতিবাদরত ছাত্রছাত্রীরা জানিয়েছে, প্রয়োজনে আংশিক সময়ের জন্য শিক্ষক আনা হোক। কিন্তু কোনভাবেই সান্ধ্যকালীন শাখা বন্ধ হতে দেওয়া যাবে না। ‌ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্তে তারা এখন খুশি।

Covid

Co