২৬ শে নভেম্বর মালদা বাসিকে দেশব্যাপী সাধারণ ধর্মঘটকে সফল করার ডাক দিল বাম ও কংগ্রেস ।

২৬ শে নভেম্বর কেন্দীয় ট্রেড ইউনিয়ন এবং ফেডারেশন সমূহের ডাকে দেশব্যাপী একটি সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে।সেই ধর্মঘটকে সফল করতে আজ মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুরে বাম এবং কংগ্রেসের একটি যৌথ মিছিল হয়। এই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সিপিএম নেতা জামিল ফিরদৌস, হরিশ্চন্দ্রপুর,চাঁচল এবং মালতীপুরের তিন কংগ্রেস বিধায়ক মুস্তাক আলম, আসিফ মেহেবুব এবং আলবেরুনি সহ দুই দলের অন্যান্য জেলা এবং ব্লক নেতৃত্ব। এছাড়াও এদিনের এই মিছিলে ভালো সংখ্যাই বাম এবং কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা সামিল হয়। মিছিল থেকে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারকে একযোগে আক্রমণ করেন জোটের নেতারা।

উল্লেখ্য,কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিভিন্ন জনবিরোধী নীতি, পরিযায়ী শ্রমিক সমস্যা,অমৃত শ্রমিক পরিবারের আর্থিক সহায়তা, ব্যাংক,রেল এলআইসি সহ বিভিন্ন রাষ্ট্রয়ত্তসংস্থার বেসরকারিকরণের প্রতিবাদ সহ একাধিক ইস্যুতে এই ধর্মঘট ডাকা হয়েছে।

ধর্মঘটকে সফল করার উদ্দেশ্যে রাজ্য জুড়েই বাম এবং কংগ্রেস একসাথে মিছিলে হাটছে।হরিশ্চন্দ্রপুরে এদিন দুই দলের দলীয় কার্য্যালয় থেকে তাদের মিছিল বেরিয়ে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে শহীদ মোড়ে এসে মিলিত হয়।সেই সময় মিছিল কার্যত মহামিছিলের রূপ নেই। মিছিল থেকে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে স্লোগান উঠে।মিছিল শেষে দুই দলের নেতারা ধর্মঘটের সমর্থনে তাদের বক্তব্য রাখেন।কেন্দ্রের সঙ্গে রাজ্য সরকারকেও একযোগে আক্রমণ করেন। সাথে আগামীর নির্বাচনে জোটের জয়ের ব্যাপারে আশাপ্রকাশ করেন।

হরিশ্চন্দ্রপুরের বিধায়ক মুস্তাক আলম বলেন, ” কেন্দ্রে জনবিরোধী সরকার চলছে। জিনিসের দাম বাড়ছে,সাধারণ মানুষের হয়রানি হচ্ছে। সাথেই বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পে দুর্নীতি নিয়ে আক্রমণ করেন রাজ্য সরকারকে।” তিনি আরোও বলেন, ” ধর্মঘটের ফলে মানুষের কিছুটা অসুবিধা হয় ঠিকই। কিন্তু যখন সংবিধান সংকটে,মানুষের অধিকার সুরক্ষিত না পথে তো তখন নামতেই হবে। সকল সাধারণ মানুষকে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে ধর্মঘট সফল করার আহ্বান জানান। “

https://youtu.be/82g8DOLn6p0

Covid

Co