এবার চীন থেকে সরতে পারে টিকটক কার্যালয়।

ভারত থেকে ইতিমধ্যে ব্যান হয়ে গিয়েছে সমস্ত চিনা অ্যাপ। এরমধ্যে রয়েছে তুমুল জনপ্রিয় শর্ট ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ ‘টিকটক’, যেটি ব্যান হওয়ার পর শোরগোল পড়ে গিয়েছিল টিকটক প্রেমীদের মধ্যে।
শোনা যাচ্ছে মার্কিন মুলুকও ব্যান করে দিতে পারে টিক টক।
ভারত থেকে ব্যান হয়ে যাওয়াতেই প্রভূত ক্ষতির মুখে পড়েছিল বাইটডান্স। তাদের পরিকল্পনা ছিল এই বছরেই ভারত থেকে ১০০ কোটি টাকা আয়ের, কিন্তু সে পরিকল্পনা এখন জলে। মার্কিন মুলুক থেকে অ্যাপটি ব্যান হলে টিকটক কতৃপক্ষকে যে বিপুল ক্ষতির মুখে পড়তে হবে সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

অ্যাপটির উৎস চীনে, আর এই কারণেই ভারত অ্যাপ টিকে ব্যান করেছে, মার্কিন মুলুকে তাই করতে চলেছে।
এই অবস্থায় চীন থেকে সরকারিভাবে নিজেদের উৎস সরিয়ে নিতে উদ্যোগী হল বাইটড্যান্স কর্তৃপক্ষ।

সূত্রের খবর, বেজিংয়ে আট বছর ধরে সদর কার্যালয় ছিল বাইটডান্সের, এবার তারা সংস্থাটিকে সরকারিভাবে নথিবদ্ধ করল হংকং বা সাংহাই এর শেয়ারবাজারে, তারা যে অ্যাপটি কে আর চীনা অ্যাপ হিসেবে নিজেদের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে চাইছেন না সেই বার্তাই দিতে চাইছে কর্তৃপক্ষ। তারা কোনোভাবেই চাইছেন না ‘চিনা অ্যাপ’ গুলির ওপর নিষেধাজ্ঞা বর্তাচ্ছে তার কোন রকম প্রভাব তাদের অ্যাপ এর উপর পড়ুক।
একাধিক সূত্রের খবর, ব্যবসা বাঁচাতে একাধিক বিকল্প আলোচনা চলছে, কিন্তু একেবারেই প্রাথমিক স্তরে রয়েছে।

Covid

Co