বিশ্ব এইডস দিবস : করণা আবহে ওষুধ না পেয়ে মৃত্যু ৫ লক্ষ করোনা রোগীর।

আজ বিশ্ব এইডস দিবস। দুনিয়াকে এইডস মুক্ত করার শপথ নেওয়ার দিন আজ। করণা পরিস্থিতিতে মানুষ প্রায় ভুলতেই বসেছে বিশ্বের অন্যতম কঠিন রোগ এইডস সংক্রমনের কথা। কিন্তু, পরিস্থিতির বদল হয়নি, প্রতিনিয়ত বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় হাজার হাজার মানুষ এইডসের শিকার হচ্ছেন।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ২০১৯ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী সারা বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশের ৩৮০ লক্ষ মানুষ সংক্রমিত। এদের মধ্যে ৩ কোটি ৬২ লক্ষ পূর্ণবয়স্ক এবং ১৮ লক্ষ শিশু। পাশাপাশি, ২০১৯ সালে বিশ্বজুড়ে ১৭ লক্ষ মানুষ এইডস আক্রান্ত হয়েছিলেন। তবে , লাগাতার প্রচারের ফলে আমাদের দেশে এইডস সংক্রমণ কমে গিয়েছে প্রায় ৫০%।
তবে দেশজুড়ে করোনা অতিমাড়ির জন্য ক্ষতি হয়েছে এইডসের চিকিৎসাতে। জয়েন্ট ইউনাইটেড নেশনস প্রোগ্রাম অন এইডস তরফে জানানো হয়েছে, দেশজুড়ে বারংবার লকডাউন হয়ে যাওয়ার ফলে অ্যান্টিরেট্রোভাইরাল ওষুধ উৎপাদন এবং বন্টন ব্যবস্থা ভেঙে পড়ে। তার ফলে বিশ্ববাজারে টানা ছয় মাস এইডস রোগীদের ওষুধ ছিল না বললেই চলে। আর ওষুধ না পেয়ে লকডাউন সময় কালে প্রায় ৫ লক্ষ এইডস আক্রান্ত রোগী মারা গিয়েছেন।
তবে, কয়েক বছর আগেও এইডস আক্রান্তদের বাঁচার কোনো সম্ভাবনা ছিল না, কিন্তু এখন অ্যান্টিরেট্রোভাইরাল থেরাপি বা ওষুধ প্রয়োগ করে এইচআইভি আক্রান্তদের বেশ কয়েক বছর বাঁচিয়ে রাখা সম্ভব।

Covid

Co