করণা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে দমকলেও।

করোনা সংকটকালে দমকল বাহিনীও একপ্রকার করোনা যোদ্ধা। বিভিন্ন সংক্রমিত এলাকা জীবাণুমুক্ত করার কাজটি করছেন দমকল কর্মী রাই।
দমকল সূত্রের খবর দমকল কর্মীদের মধ্যেও বাড়ছে সংক্রমণ। রাজ্যের মোট ১৪৪ টি দমকল কেন্দ্রের এখনো পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৬০ জন
কর্মী।


সূত্রের খবর অনুযায়ী সবচেয়ে খারাপ অবস্থা উত্তর ২৪ পরগনার দমকল কেন্দ্রগুলিতে,এই জেলার হাজার ১৯ টি দমকল কেন্দ্রের কুড়িজন ইতিমধ্যেই আক্রান্ত।
সংক্রমিত হয়েছেন নিউ ব্যারাকপুর এর দুই কর্মী এবং বসিরহাট কেন্দ্রে পাঁচজন দমকলকর্মী। সূত্রের খবর, দমকল বাহিনীতে করণা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে প্রতিনিয়ত, হলে দফতরের চিন্তা যদি কোনো বড় দুর্ঘটনা ঘটে তাহলে কি করে সামাল দেওয়া হবে।
দমকলকর্মীর একাংশের অভিযোগ জীবাণুমুক্ত করার জন্য তারা পাচ্ছেন না পর্যাপ্ত পরিমাণে পিপিই। এবং আক্রান্তের বাড়ির লোকেদের দাবি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হলে যাবতীয় খরচ তাদের নিজেদেরকেই বহন করতে হচ্ছে।
দমকলকর্মী সুজিৎ বসু জানিয়েছেন, আক্রান্ত কর্মীরা যদি বেসরকারি হাসপাতালে পরিষেবা পান সেটি গুরুত্ব দিয়ে তিনি দেখবেন এবং জীবানুমুক্ত করার সময় কর্মীরা যাতে পর্যাপ্ত পিপিই পান সে বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

Covid

Co