আছড়ে পড়তে চলেছে যশ , কি করবেন কি করবেন না – দেখে নিন

২০ শে মে ,২০২০ তিলোত্তমার বুকে যে ভয়াবহ ঝড় আছড়ে পড়েছিল তার রেশ বোধ হয় থেকে গিয়েছে এখনো , আর বছর ঘুরতে না ঘুরতেই আবারও উঁকি মারছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় যশ। প্রশাসনিক সূত্রে যে খবর পাওয়া গেছে তা হলো শহর কলকাতা প্রস্তুত রয়েছে জোশের মোকাবিলা করতে। গাছ কেটে , কুইক রেসপন্স টিম গঠন করে একেবারে কোমর বেঁধে মাঠে নেমে পড়েছে প্রশাসনিক কর্তারা।
এবার আমার আপনার মতো সাধারণ মানুষদেরকেও কিন্তু বেশ কিছু সতর্কতা মেনে চলতে হবে।
প্রথমত – মৎস্যজীবীরা সমুদ্রে যাবেননা, নৌকা কোনো নিরাপদ জায়গায় বেঁধে রাখতে হবে।
২) মোবাইল ফোন , পাওয়ার ব্যাংক , ইমার্জেন্সি টর্চ লাইট ফুল চার্জ দিয়ে রাখবেন।
৩) জরুরি এবং মূল্যবান নথিপত্র নিরাপদ জায়গায় রাখতে হবে যাতে জলে ভিজে না যায়।
৪) প্রয়োজনীয় ওষুধ , খাবার এবং অত্যাবশকীয় সামগ্রী হাতের কাছে রাখতে হবে।
৫) বাড়িতে যদি কোনো পোষ্য থাকে তাহলে অবশ্যই তাকে বেঁধে রাখবেন না , নিজের মতো নিরাপদ জায়গা আপনার পোষ্যকে খুঁজে নিতে দিন।
৬) এছাড়াও যারা মাটির কাঁচা বাড়ি বা ক্ষতিগ্রস্থ পাকা বাড়িতে থাকেন তারা বাড়িতে থাকবেন না, উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে দুর্যোগের হাত থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয় ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র বা পাকা বাড়িতে আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে প্রশাসন।
৭) এছাড়াও সংবাদ মাধ্যম এবং প্রশাসনের খবরই শুধু মাত্র বিশ্বাস করবেন কোনোরকম গুজবে কিন্তু কান দেবেন না।
আর ইতিমধ্যেই রাজ্য স্বাস্থ দফতর তরফে ২টি হেল্পলাইন নম্বর এর কথা বলা হয়েছে , যেগুলো ২৫ শে মে চালু হবে। সেই নম্বর ২টি হলো – ৮৯০০৭৯৩৫০৩ এবং ৮৯০০৭৯৩৫০৪। কন্ট্রোল রুমে ২৫ তারিখ থেকেই দেখা যাবে রাজ্যের বিদ্যুৎ মন্ত্রী অরূপ রায় কে।

Covid

Co