নতুন বাংলা গড়ব ,পরিবর্তনের পরিবর্তন চাই, জনসভা থেকে বার্তা শুভেন্দুর।

সম্প্রতি দিন দুয়েক আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছেন একদা তৃণমূলের কান্ডারি হিসেবে পরিচিত শুভেন্দু অধিকারী। আর বিজেপিতে যোগদান করার পর থেকেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে একের পর এক বিদ্বেষমূলক কথা তিনি বলেছেন। আজ বিজেপিতে যোগদান করার পর শুভেন্দু অধিকারীর প্রথম জনসভা ছিল পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলীতে।রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের সাথে একই মঞ্চে থেকে শুভেন্দু বাবু রাজ্যবাসজীকে বার্তা দেন “তোলাবাজ ভাইপো” সরকারকে সরানোর জন্য। শুভেন্দুবাবুর বক্তৃতা জুড়ে ছিল তৃণমুল সরকারের নিন্দা। শুভেন্দুবাবুকে যে বিশ্বাসঘাতক বলা হয়েছে তারও কড়া ভাষায় জবাব দেন তিনি। শুভেন্দু বাবুর বক্তব্য :
➤ তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন একটাই শর্তে, তিনি চান “তোলাবাজ ভাইপো” হটাতে।
➤ ২০১১ সালে যে পরিবর্তন হয়েছিল সেই পরিবর্তনের পরিবর্তন চান শুভেন্দু। দৃঢ় গলায় তিনি জানালেন বাংলাকে তুলে দিতেই হবে নরেন্দ্র মোদির হাতে। তা ছাড়া বাংলাকে বাঁচানোর কোনো উপায় নেই। শুভেন্দুবাবু নিশ্চয়তার সাথে বলেন, জয় হবে বিজেপিরই। জিতে রাজ্য বিজেপি নতুন বাংলা গড়ার কাজে হাত দেবে। আর যোগদান বিষয়ে তিনি বলেন, এ তো সবে শুরু,এরপর এরকম আরও চলতে থাকবে।
➤ বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই শুভেন্দু বাবুরকে মীরজাফর আখ্যা দেওয়া হচ্ছিল, তারও কড়া ভাষায় জবাব দেন তিনি।তিনি বলেন,আমি একজন শৃঙ্খলপরায়ণ কর্মী ছিলাম সেকারণেই মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিয়েছি।শুধুমাত্র মন্ত্রিত্ব নয় সবরকমের পদ ছেড়ে দিয়েছি।
➤ এর পাশাপাশি তিনি তৃণমূল সরকারের ওপর অভিযোগ তোলেন কয়লা থেকে শুরু করে গরু পাচারের।তিনি বলেন, ভুল করেও যদি এইবার তৃণমূল জিতে যায় তাহলে কিডনি পাচারও শুরু হয়ে যাবে।

Covid

Co