অগাস্টে দাম বাড়তে চলেছে কেরোসিনের।

করোনা পরিস্থিতির সংকটকালে দেশের আর্থিক অবস্থা কতটা শোচনীয় তা বলাই বাহুল্য। মূল্যবৃদ্ধি তো হচ্ছেই বেকারত্বও বাড়ছে হু হু করে।
এরইমধ্যে কেরোসিনের গ্রাহক মূল্য বাড়তে চলেছে প্রায় দুই টাকা। জুন মাসের তুলনায় জুলাই মাসে কেরোসিনের দাম ১০ টাকা বেড়ে ছিল। সূত্রের খবর অনুযায়ী তার থেকেও প্রায় দুই টাকা অতিরিক্ত মূল্য দিতে হবে গ্রাহকদের। অর্থাৎ জুলাই মাসে কলকাতা এবং বিধান নগরে কেরোসিনের গ্রাহক মূল্য ছিল ২৬.৮০ টাকা, অগাস্টে গ্রাহক মূল্য হতে চলেছে প্রায় ২৯ টাকা।
কলকাতা থেকে একটু দূরের জেলাগুলিতে আরো ২-৩ টাকা বেশি দাম দিয়ে কেরোসিন কিনতে হবে গ্রাহককে। ফলে সেখানে এক লিটারের দাম ৩১-৩২ টাকা হতে চলেছে বলে খবর।


যদিও আন্তর্জাতিক বাজারে কেরোসিনের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কোন খবর এখনো পর্যন্ত, কিন্তু দেশে প্রায়শই বাড়ছে কেরোসিনের দাম। গণবণ্টন ব্যবস্থায় কেরোসিনের দাম নির্ধারণ করার অধিকার আছে কেন্দ্রীয় সরকারের।
দেশের এই রকম অর্থনৈতিক অবস্থার মধ্যে প্রতিনিয়ত প্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্য বৃদ্ধিতে আমজনতার প্রতিক্রিয়া কেন্দ্রীয় সরকার মানুষকে নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে ‌।

Covid

Co