রবিঠাকুরের মেজদাকে বারংবার বড়দা বলে বিতর্কে জড়ালেন নরেন্দ্র মোদী।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আজ সশরীরে উপস্থিত হতে পারেননি বিশ্বভারতীর শতবর্ষ অনুষ্ঠানে কিন্তু তিনি যোগ দিয়েছিলেন ভার্চুয়ালি। রবীন্দ্রনাথের সাথে গুজরাটের সম্পর্ক থেকে শুরু করে মনীষীদের গৌরব, মোদী কথা বলেছেন বেশ কিছু বিষয় নিয়ে। এরই মধ্যে মোদী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মেজদাকে বলে বসলেন রবি ঠাকুরের বড়দা, আর নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক।
আজ একটি সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু ঠিক এই ভুল গুলোই উল্লেখ করলেন বিশ্বভারতী এবং মোদী প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে। ব্রাত্য বাবু বলেন,প্রধানমন্ত্রীর এই ভাষণ তাকে অবাক করেছে।মোদীজি বারংবার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মেজদা সত্যেন্দ্রনাথকে বড়দা বলেছেন তা শুনেই ব্রাত্যবাবু অবাক হয়েছেন। আর এটাই সত্যি যে রবিঠাকুরের মেজদা ছিলেন সত্যেন্দ্রনাথ। শুধু তাই নয়,তিনি সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্ত্রী এর নাম ও ভুল বলেছেন।আসলে ওনার নাম জ্ঞানদানন্দিনী দেবী, কিন্তু মোদী উচ্চারণ করেছেন ‘জ্ঞানন্দিনী’
এর পাশাপাশি মোদীজির বেশকিছু বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ব্রাত্য বসু।

Covid

Co