নিয়োগ ,বেতন কাঠামোসহ বিভিন্ন দাবীতে বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ শিক্ষক ও শিক্ষক পদপ্রার্থীদের

নিয়োগ ,বেতন কাঠামোসহ বিভিন্ন দাবীতে বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভে পথে নেমেছেন শিক্ষক ও বহু শিক্ষক পদপ্রার্থীরা। এমনকি তাদের দাবি পূরণ না করলে বৃহত্তর আন্দোলন বা মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি ঘেরাও বা অনশন করার মতো হুমকিও দিচ্ছেন তারা। গত ২ ডিসেম্বর উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগের দাবিতে সল্টলেকে এসএসসি অফিসের সামনে ধর্ণায় বসে শিক্ষকপদপ্রার্থীরা। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয়। ওই একই সময়ে নবম ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষক পদপ্রার্থীরা এসএসসির প্রধান অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখান। বিক্ষোভকারীরা দাবি করেন ২০১৯ সালের মার্চ মাসে এই একই কারণে ধর্মতলায় বিক্ষোভে বসেছিলেন তারা। মুখ্যমন্ত্রী ওই সময়ে তাদের দাবিপূরণের প্রতিশ্রুতি দিলেও তা এখনো পূরণ করেননি তিনি। এইবার একই ঘটনা ঘটলে আরো বৃহত্তর আন্দোলনে নামবেন তারা। একইভাবে ওয়েস্ট বেঙ্গল প্রাইমারি ট্রেন্ড টিচার্স এসোসিয়েশন এক সদস্য অভিযোগ করেন ,২০১১ সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউট অর্থাৎ পিটিটিআই থেকে পাস করা প্রার্থীদের নিয়োগ করা হবে ধাপে ধাপে। সম্প্রতি বেশ কিছু মাস আগে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় তাদের নিয়োগ করার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা একইভাবে ‘প্রতিশ্রুতি’ই থেকে গেছে। ওই সদস্য আরো জানান , অন্তত ৫০০ জন প্রার্থী দিনের পর দিন আন্দোলন করে চলেছে। এইবার তাদের দাবিপূরণ না হলে তারা মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি ঘেরাও করতে বা অনশন বিক্ষোভে বসতে বাধ্য হবে।

Covid

Co