আগুনে পুড়ে মর্মান্তিক মৃত্যু হল বিশেষভাবে সক্ষম এক তরুণীর।

মহেশতলা থানার জিঞ্জিরাবাজারের বাসিন্দা পুতুল মন্ডল বিশেষভাবে সক্ষম , থাকতেন মা বাবার সাথে। এই এদিন তার সাথেই ঘরে গেলো এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। আগুনে পুড়ে মৃত্যু হলো পুতুলের। এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, পুতুল বিশেষভাবে অক্ষম থাকায় সারাদিন শয্যাশায়ী হয়ে কাটাতেন। আর পুতুলের বাবা ভোলাবাবু মূক এবং বধির ,তাই তিনিও যথেষ্ট সক্রিয় নন। .
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ,এদিন পুতুলের মা ঘরে ঠাকুরের কাছে একটি প্রদীপ জ্বালিয়েছিলেন , আর কোনোভাবে সেই প্রদীপের শিখা থেকে আগুন বলেফে দ্রুত ছড়িয়ে পরে ঘরে। আর শয্যাশায়ী থাকায় নিজেকে বাঁচানোর কোনো সুযোগই পায়নি পুতুল। ভোলাবাবু মেয়েকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেও তিনি পারেননি। শেষ পর্যন্ত দমকলে খবই দেওয়া হয় এবং প্রতিবেশীদের তৎপরতায় উদ্ধার করা হয় পুতুলকে। কিন্তু ততক্ষনে প্রায় সারা শরীর পুড়ে গিয়েছে পুতুলের। তৎক্ষণাৎ পুতুলকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।
ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়।

Covid

Co